রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি

বর্তমানে থ্রিলার প্রেমিদের কাছে মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের  রবীন্দ্রনাথ সিরিজের খ্যাতি তুঙ্গে। 

রবীন্দ্রনাথ সিরিজের দ্বিতীয় বই ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও আসেননি’। এটি পড়ার আগে পড়তে হবে এই সিরিজের প্রথম বই ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ । 

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি
সোর্স: ফেসবুক

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি বইটির রিভিউ পড়তে ক্লিক করুন

হালকা স্পয়লার 

রবীন্দ্রনাথ সিরিজের এই বইটিতে দেখা গেছে নূরে ছফা এবার অনেক এগিয়ে গেছে। মুশকান জুবেরিকে ধরার জন্য সে নিজের কাছেই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। কে এস খানের পরামর্শ মতো সে আবার সুন্দরপুর থেকেই শুরু করে। এবার সে খুঁজে পায় আরোও কিছু তথ্য।মুশকান জুবেরির ট্রাস্টি করে যাওয়া সম্পত্তিতে রামাকান্তকামার করেছেন তার স্বপ্নের  স্কুল। মুশকান জুবেরির হোটেল এখন লাইব্রেরি।আতর আলী এখন আগের থেকে একটু ভদ্র জীবন যাপন করছে। রহমান মিয়ার চায়ের দোকানটা আগের জায়গাতেই আছে। টাউনে মুশকানের হোটেলের দুইজন কর্মী দিয়েছে আলাদা হোটেল। যার মধ্যে একটির নাম ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও আসেননি’।

 সুন্দরপুর থেকে নুরে ছফা বিভিন্ন সুত্র জোগার করে জানতে পারে মুশকান আছে কলকাতায়।সেখানে গিয়ে ছফা তার বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়ে মুশকানের আরোও দুটি খুনের  রহস্য আবিষ্কার করে।এমন সময় আবির্ভাব হয় ডক্তার সায়িদের কন্যা সুস্মিতার।ছফার ধারণা হয় সুস্মিতাই মুশকান জুবেরি। তাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় প্রধানমন্ত্রীর পিএস এর কাছে যার সুনজর আছে এই কেসের উপর। বিভিন্ন জলপনা কল্পনার মধ্য দিয়ে সুস্মিতাকে উদ্ধার করে বেরিয়ে আসে উশকান জুবেরি। সে সুস্মিতাকে উদ্ধার করতে সক্ষম হলেও সুস্মিতা এরই মধ্যে ঘটয়ে ফেলে এক অঘটন। পিএস আশেক মাহমুদ এর গার্ডকে সে খুন করে। এই ঘটনার পর জানা যায় চিরযৌবন লাভের জন্য শুধু মুশকান নয় তার সাথে যোগ দিয়েছিলেন ডাক্তার আসকার ইবনে সায়িদ। এবং তাদের দলের নতুন সদস্য সুস্মিতাও।

সবকিছুর পর ছফার হাত থেকে কয়েকবার পালিয়ে যায় মুশকান জুবেরি।শেষ পর্যন্ত কি ছফা পারবে মুশকান জুবেরিকে ধরতে? নাকি মুশকান এবারেও থাকবে ধরা ছোয়ার বাইরে? জানতে হলে পড়তে হবে রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও আসেননি বইটি।  

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি
রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি
পাঠ প্রতিক্রিয়াঃ বইটি পড়ে আমি ব্যক্তিগত ভাবে হতাশ। একেবারেই থ্রিল পায়নি। থ্রিল পাওয়ার জন্য বিভিন্ন ভাবে বিভিন্ন জায়গায় এবং বিভিন্ন সময়ে পড়েছি। কিন্তু আমার ব্যক্তিগত ভাবে ভালো লাগেনি খুব একটা। আমার কাছে মনে হয়েছে একটা ঘটনাকে খুব বেশি বড় করে লেখা হয়েছে।সিরিজের প্রথম বইটা পড়ে দ্বিতীয়টার ব্যাপারে যতটক আশাবাদী ছিলাম ততটা ভালো লাগেনি।যদিও ভালো লাগা না লাগার ব্যাপারগুলা ব্যক্তিগত পছন্দের উপর নির্ভর করে!
চরিত্র সমূহ : রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও আসেননি বইটিতে বেশ কয়েকটি চরিত্র রয়েছে।

মুশকান জুবেরি (প্রধান চরিত্র)

নূরে ছফা

সুষ্মিতা 

প্রধান মন্ত্রীর পিএস আশেক মাহমুদ

আতর আলী

ডাক্তার আসকার ইবনে সায়িদ

ডিবির সাবেক অফিসার কেএস খান 

মাস্টার রামাকান্তকামার  

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি

প্রতিটি চরিত্রেরই নিজস্ব একটা গুন থাকে। এই বইয়ের চরিত্রগুলোও তার ব্যাতিক্রম নয়। তবে আমার সবচেয়ে পছন্দের চরিত্র নূরে ছফা। ছফার বিচার বুদ্ধি আমার কাছে যথেষ্টই অন্যরমক এবং ভালো লেগেছে। মুশকান জুবেরি প্রধান চরিত্র হলেও তাকে খুঁজে পাওয়া গেছে বইয়ের মাঝামাঝি পর্যায়ে এসে। 

লেখক পরিচিতিঃ  

রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি

বর্তমান সময়ে থ্রিলার সম্রাট খ্যাত লেখক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন। এই থ্রিলার লেখকের জন্ম ঢাকায়। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদে এক বছর অধ্যয়নের পর সেখান থেকে বেরিয়ে এসে তার সৃজনশীল সত্ত্বা বিকাশের উপযোগী আরেকটি বিষয় তথা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন বাংলার পাঠকের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন ভিনদেশী বিখ্যাত থ্রিলারগুলো অনুবাদ করার মধ্য দিয়ে। ২৬টিরও বেশি বইয়ের এ অনুবাদক পরবর্তীতে মনোনিবেশ করেন মৌলিক থ্রিলার রচনায়।  অনুবাদক এবং থ্রিলার লেখক ছাড়াও নাজিমের আরেকটি পরিচয় হলো- তিনি বাংলাদেশের বাতিঘর প্রকাশনীর প্রতিষ্ঠাতা প্রকাশক।

জনপ্রিয় এই থ্রিলার লেখকের বিখ্যাত কিছু সৃষ্টির নামঃ

👉১৯৫২ নিছক কোনো সংখ্যা নয়

👉রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেন নি 

👉রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি

👉নেমেসিস

👉কন্ট্রাক্ট

👉বেগ বাস্টার্ড 

👉কেউ কেউ কথা রাখে

বাংলাদেশের সেরা থ্রিলার লেখকদের সম্পর্কে জানতে ক্লিক করুন!

বইয়ের মানঃ

বইয়ের মান সত্যিই অসাধারণ ।পেইজ,কভার সবকিছুই উচ্চমানের ছিল। বানানের দিক থেকেও সেরকম ভুল আমার চোখে পরে নি। 

ব্যক্তিগত রেটিংঃ ৩/৫ 

বই পরিচিতি

  • বইঃ রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও আসেননি
  • লেখক এবং প্রকাশকঃ মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন
  • জনরাঃ থ্রিলার
  • প্রথম প্রকাশঃ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
  • ত্রয়োদশ মুদ্রণঃ ফেব্রুয়ারি ২০২১
  • প্রকাশনীঃ বাতিঘর প্রকাশনী
  • প্রচ্ছদঃ সিরাজুল ইসলাম নিউটন
  • মুল্যঃ পাঁচশত টাকা মাত্র 

📝রিভিউয়ার-সুমাইয়া শেফা

আরো রিভিউ পড়তে ক্লিক করুন

 

One reply to “রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো আসেননি”

Leave a Reply

Your email address will not be published.